রাঙাউটি রিসোর্ট মৌলভীবাজার, সিলেট।

প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে  ভরপুর রিসোর্ট গুলোর মধ্যে অন্যতম হল রাঙাউটি রিসোর্ট মৌলভীবাজার, সিলেট । চারিদিকে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যের সমারোহ বেষ্টিত রাঙাউটি রিসোর্টটির অন্যতম উপভোগ্য বিষয় হল মনু ব্যারেজ নামক লেক। মধ্যবিত্তের সাধ্যের মধ্যে একটি পরিপূর্ণ বিলাসবহুল এই রাঙাউটি রিসোর্ট।

সব ধরণের আধুনিক সুযোগ সুবিধা সমন্বিত এই রিসোর্টর চারিদিকে সবুজের সমারোহ। বিভিন্ন প্রজাতির ফুল গাছ ও নানা প্রজাতির বাহারি গাছের সমন্বয় রয়েছে এই রিসোর্টে। মৌলভীবাজার জেলা শহর থেকে মাত্র ২ কিলোমিটার দূরত্বে অবস্থিত মনু ব্যারেজের পাশে রাঙাউটি রিসোর্টের অবস্থান। ৪৫ একর জায়গাজুড়ে বিস্তৃত এই রাঙাউটি রিসোর্ট যাত্রা শুরু করে ২০০৯ সালে।

রাঙাউটি রিসোর্ট মৌলভীবাজার, সিলেট

রাঙাউটি রিসোর্ট মৌলভীবাজার, সিলেট

অভিজাত বিশালাকার তিনতলা রিসোর্টটি দেখলে মনে হয় যেন একটি বঢ় বাংলো বাড়ি। রাঙাউটি রিসোর্ট মৌলভীবাজার, সিলেট এর মূল ভবনের সামনে রয়েছে রিসিপশন, উন্নত মানের একটি রেস্টুরেন্ট এবং পেছনে একটি কনফারেন্স হল রুম। এর বাম দিকে আছে গাড়ি পার্কিং এর ব্যবস্থা আর ডান দিকে প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অপূর্ব নিদর্শন মনু ব্যারেজ লেক। রিসোর্টের মূল ভবন পেরিয়ে গেলে দেখতে পাবেন সুবিশাল মাঠ, যার চারদিকে বসার সুব্যবস্থা রয়েছে এবং একই ভাবে লেকের পাড়েও বসার সুব্যবস্থা আছে।মাঠের বিভিন্ন স্থানে দোলনা ও বাচ্চাদের খেলাধুলার বিভিন্ন খেলার উপকরণের পাশাপাশি মাঠের চারদিকে ও লেক পাড়ে রয়েছে বিভিন্ন প্রজাতির ফুল গাছ।

রাঙাউটি রিসোর্ট মৌলভীবাজার, সিলেট

সম্পূর্ণ পরিবেশ বান্ধব এই রিসোর্টের চারপাশ অপরূপ সবুজের আবরণে মোড়া। প্রশান্তিময় প্রাকৃতিক পরিবেশের মাঝে দারুণ কিছু সময় কাটানোর জন্য এই রিসোর্টের জুড়ি মেলা ভার।

বেশ কিছু লেক ভিউ দৃষ্টিনন্দন কটেজ রয়েছে মাঠের বাম দিকে পর্যটকদের থাকার জন্য। দেখতে আধা পাকা ছনের ঘর মনে হলেও ভিতরে রয়েছে আলিশান ব্যবস্থা। পর্যটকরা কটেজ বারান্দায় বসে লেক ভিউ পারবেন। এছাড়াও লেকের উপরে রাত্রি যাপনের জন্য রয়েছে অভিজাত ভাসমান কটেজ।অভিজাত ভাসমান কটেজ ভাড়া বেশি হলেও অন্যান্য রিসোর্টের তুলনা থেকে তুলনা মূলক কম। সুন্দর ও পরিপাটিভাবে সাজানো গুছানো এই রাঙাউটি রিসোর্ট একদম পরিস্কার পরিচ্ছন্ন।

রাঙাউটি রিসোর্ট মৌলভীবাজার, সিলেট

এই রিসোর্টের পুল খেলার রুম ও সুইমিং পুল। যারা রুম বুকিং দিয়ে থাকবে, তাদের জন্য সুইমিং পুলে গোসল করতে ও পুল খেলতে আলাদা কোন চার্জ দিতে হয় না। তবে যারা শুধুমাত্র রিসোর্ট ঘুরে দেখতে যাবে, তাদের জন্য সুইমিং পুলে গোসল করতে ও পুল খেলতে আলাদা ভাবে চার্জ দিতে হবে। রিসোর্টটি মনু ব্যারেজ লেকের গাঁ ঘেসে আবস্থান করায় এখানে রয়েছে স্পীড / নৌকা চালানোর সুব্যবস্থা। পর্যটকদের লেক ঘুরে দেখানোর জন্য স্পীডবোট এর ব্যবস্থাও রয়েছে এর জন্য আলাদা ভাবে চার্জ দিতে হয়।

রুম ভাড়া

মাত্র ৪ হাজার টাকা থেকে শুরু করে ১৫ হাজার টাকায় এসি, নন-এসি রুম বুকিং করা যায়। আপনাদের সাধ্যের মধ্যে বেছে নিতে পারবেন পছন্দের যেকোনো কুটির।

ডিলাক্স টুইন মেইন প্রাইস ৪,৮০০ টাকা

ফ্যামেলি ডিলাক্স মেইন প্রাইস ৭,২০০ টাকা

সুপার ডিলাক্স মেইন প্রাইস ৭,২০০ টাকা

স্পেশাল সুপার ডিলাক্স ৮,৪০০ টাকা।

জল জোছনা স্যুইট মেইন প্রাইস ১২,০০০ টাকা।

BUS AND TRAIN

রাঙাউটি রিসোর্ট মৌলভীবাজার, সিলেট যাতায়ত ব্যবস্থা সম্পর্কে ধারণা

রাঙাউটি রিসোর্ট মৌলভীবাজার, সিলেট এ যাওয়ার জন্য প্রথমেই আপনাকে মৌলভীবাজার শহরে আসতে হবে। মৌলভীবাজার থেকে রাঙাউটি রিসোর্ট দূরত্ব প্রায় 2 কিলোমিটার। মৌলভীবাজার, থেকে বাস, সিএনজি, লেগুনা বা প্রাইভেট কারে করে যাওয়া যায় রাঙাউটি রিসোর্ট।

বাস ভাড়া

ঢাকা বাস স্টেন্ড থেকে চাঁদনী ঘাট বাস স্টেন্ড গিয়ে সেখান থেকে যেকোন বাসের মাধ্যমে রাঙাউটি রিসোর্ট যেতে পারেন। ঢাকা বাস স্টেন্ড থেকে চাঁদনী ঘাট বাস স্টেন্ড এর অটোরিক্সা ভাড়া জনপ্রতি ১৫ টাকা, চাঁদনী ঘাট বাস স্টেন্ড থেকে রাঙাউটি রিসোর্ট বাস ভাড়া জনপ্রতি ১৫ টাকা।

সিএনজি ভাড়া

ঢাকা বাস স্টেন্ড থেকে রাঙাউটি রিসোর্ট বাস ভাড়া জনপ্রতি ১৫০-২০০ টাকা।

মাইক্রো কিংবা প্রাইভেট কার ভাড়া

মাইক্রো কিংবা প্রাইভেট কার রিজার্ভ করে ৫০০-১০০০ টাকায় সরাসরি ভোলাগঞ্জ দশ নম্বর ঘাট যেতে পারবেন।

ঢাকা বাস স্টেন্ড থেকে রাঙাউটি রিসোর্ট অটোরিক্সার ভাড়া

ঢাকা বাস স্টেন্ড থেকে রাঙাউটি রিসোর্ট বাস ভাড়া জনপ্রতি ১৫০-২০০ টাকা।

বাসে / ট্রেনে করে মৌলভীবাজার যাতায়ত খরচ

ঢাকা টু মৌলভীবাজার, যেকোন বাস স্টেশন থেকে সৌদিয়া, গ্রীন লাইন, শ্যামলি, এনা ইত্যাদি পরিবহনের মাধ্যমে সিলেট যাতায়ত করতে পারেন। এক্ষেত্রে এসি বাস ভেদে জনপ্রতি টিকেটের মূল্য ১০০০ থেকে ১২০০ টাকা। আর নন-এসি বাসের ভাড়া ৪৭৫ থেকে ৬০০ টাকা। ট্রেনে করে মৌলভীবাজার যাতায়াত এর সরাসরি কোন মাধ্যম নেই। তবে ঢাকা ট্রেনে করে শ্রীমঙ্গল যাওয়ার পর শ্রীমঙ্গল থেকে মৌলভীবাজার যেতে হবে। এক্ষত্রে কমলাপুর কিংবা বিমান বন্দর রেলওয়ে স্টেশান হতে উপবন, জয়ন্তিকা, পারাবত অথবা কালনী এক্সপ্রেস ট্রেনকে বেছে নিতে। শ্রীমঙ্গল থেকে মৌলভীবাজার বাস / সিএনজি ভাড়া ৩০ টাকা।

ভোলাগঞ্জ সাদা পাথর পর্যটন কেন্দ্র সম্পর্কে….

যোগাযোগ :

ফোন: ০১৭৮০২০৩৩৫০ / ০১৯৬৬১১০ ০০০।
ফেইসবুক পেইজ- www.facebook.com/RangautiResort
ওয়েবসাইট – www.rangautiresort.com

Leave a Comment